বৃহস্পতিবার, ০৬ অগাস্ট ২০২০, ০৪:২৬ অপরাহ্ন

করোনা আক্রান্ত এনজিও কর্মী রাজবাড়ী থেকে চৌগাছায়, আতংকে গ্রামবাসী

এখনই ডট কম ডেস্ক:
  • প্রকাশের সময়: বুধবার, ২৪ জুন, ২০২০
  • ৩২১ বার দেখা হয়েছে

সুশান্ত হালদার যশোরের চৌগাছা উপজেলার স্বরূপদাহ ইউনিয়নের মাধবপুর গ্রামের রাধা হালদারের ছেলে। তিনি জাগরণী চক্র ফাউন্ডেশন নামে একটি এনজিও কর্মকর্তা হিসেবে রাজবাড়ী জেলার বালিয়াকান্দি উপজেলায় চাকুরী করেন। ২০ জুন করোন পজেটিভ রিপোর্ট আসার পর মঙ্গলবার তিনি প্রায় ১৫০ কিলোমিটার মোটরসাইকেল চালিয়ে নিজ বাড়িতে ফেরেন।

মোবাইল ফোনে সুশান্ত হালদার এ প্রতিবেদককে জানান তিনি জাগরণী চক্র ফাউন্ডেশনের কর্মকর্তা হিসেবে রাজবাড়ি জেলার বালিয়াকান্দি উপজেলায় চাকুরি করি। মাঝে মধ্যে ফিল্ডেও যাই। জ্বর ও গলা ব্যাথা থাকায় তিনি গত ১৪ জুন বালিয়াডাঙ্গি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনার নমুনা দিই। ২০ জুন তার করোনা পজেটিভ রিপোর্ট আসে। তিনি জানান ফিল্ডে যাওয়ায় বা টাকা লেনদেনের মাধ্যমে কোনভাবে হয়তো ভাইরাসটি আমার শরীরে এসে থাকতে পারে। তিনি বলেন, আমি সেখানে অফিসের অন্যদের সাথে মেসে থাকতাম। নমুনা দেয়ার পর থেকেই সেখানে আইসোলেটেড ছিলাম। সেখানে একটা আলাদা রুমে থাকতাম। মঙ্গলবার মেসের সবাই যার যার বাড়িতে চলে যাওয়ায় আমি নিজের মোটরসাইকেলে করে একাই সেখান থেকে সন্ধ্যায় গ্রামের বাড়িতে চলে আসি। কিন্ত গ্রামে আসার পর গ্রামের লোকজন আমাদের পরিবারের সাথে অত্যন্ত দুর্ব্যবহার করেছে। তারা অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করছেন। আমাদের বাড়ির চারদিকে বাঁশ বেধে দিয়েছে যেন বাড়ি থেকে না বের হতে পারি। আমি নিজে যে ঘরে আইসোলেটেড আছি সে ঘরের জানালা পর্যন্ত তারা খুলতে দিচ্ছে না। তারা জানালা থেকে প্রায় ১শ ফুট, ২শ ফুট দূর থেকেও আমাকে জানালা বন্ধ করে রাখতে বলছে। নিজের ঘর থেকে নিজেদের বাড়ির আঙিনায় বেরিয়ে গোসল করতেও দিচ্ছে না। তিনি বলেন এখন আমার একটু গলা ব্যাথা ছাড়া অন্য উপসর্গ নেই।

স্বরূপদাহ ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) মাধবপুর গ্রামের ইউপি সদস্য গাজী কামাল হোসেন বলেন আমি মাত্রই গ্রামে এসে বিষয়টি শুনেছি। এখনি খোঁজ খবর নিচ্ছি। তিনি বলেন বিষয়টি মানবিক। ওই ব্যক্তি নিজের বাড়িতেই থাকবেন। গ্রামের কেউ যেন তার সাথে খারাপ ব্যবহার না করেন সেটি দেখা হবে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. লুৎফুন্নাহার লাকি বলেন আমি ওই রোগীর সাথে কথা বলেছি। তিনি ১৪ জুন নমুনা দিয়েছিলেন ২০ জুন তার নমুনা পজেটিভ এসেছে বলে আমাকে জানিয়েছেন। তিনি আমাকে জানিয়েছেন তিনি নিজ বাড়িতে আইসোলেটেড করেছেন। ডা. লুৎফুন্নাহার বলেন আগামী ২৮ জুন আমরা ফের তার নমুনা নেব। এরপর বোঝা যাবে তিনি পজেটিভ আছেন না নেগেটিভ হয়েছেন।

তথ্যসূত্র: স্বাধীনআলোডটকম

স্যোশাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

এই ধরনের আরো সংবাদ

করোনা ভাইরাস থেকে সতর্ক থাকতে যা করনীয়ঃ

  • সবসময় হাত পরিষ্কার রাখুন। সাবান দিয়ে অন্তত পক্ষে ২০ সেকেন্ড যাবত হাত ধুতে হবে।
  • সাবান না থাকলে হেক্সিসল ব্যবহার করুন। হেক্সিসল না থাকলে হ্যান্ড সেনিটাইজার ব্যবহার করুন।
  • আক্রান্ত ব্যক্তি থেকে দূরে থাকুন, যতটুকু সম্ভব ভীড় এড়িয়ে চলুন।
  • বাজারে কিছু স্পর্শ করা থেকে বিরত থাকুন, করলে হাত সাবান দিয়ে ধুয়ে নিন।
  • টাকা গোনা ও লেনদেনের পর হাত সাবান দিয়ে ভালো করে ধুয়ে ফেলুন।
  • ওভার ব্রিজ ও সিড়ির রেলিং ধরে ওঠা থেকে বিরত থাকুন।
  • পাবলিক প্লেসে দরজার হাতল, পানির কল স্পর্শ করতে টিস্যু ব্যবহার করুন।
  • হাত মেলানো, কোলাকুলি থেকে বিরত থাকুন।
  • নাক, মুখ ও চোখ চুলকানো থেকে বিরত থাকুন।
  • হাঁচি কাশির সময় কনুই ব্যবহার করুন।
  • আপনি যদি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত না হয়ে থাকেন তবে মাস্ক ব্যবহার আবশ্যক নয় তবে আক্রান্ত হলে সংক্রমণ না ছড়াতে নিজে মাস্ক ব্যবহার করুন।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে আতঙ্কিত না হয়ে সতর্ক থাকুন। Stay Home, Stay Safe.

ইমেইল: news@akhone.com
কারিগরি সহযোগিতায়: নি-টেক
11223